ফের অবস্থান আন্দোলনে TET উত্তীর্ণদের একাংশ

মালদা: ২০১৪ সালে TET উত্তীর্ণ প্রায় দু’শো প্রার্থীর নিয়োগ প্রক্রিয়া মাঝপথে বন্ধ হয়ে যাওয়ায় এদিন মালদার বার্লো গার্লস স্কুলের সামনে ধর্নায় বসলেন প্রায় দু’শো প্রার্থী। অবিলম্বে নিয়োগ প্রক্রিয়া ফের চালু না হলে বৃহত্তর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তারা। আন্দোলনকারীরা জানিয়েছেন, ২০১৪ সালে টেট পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের নিয়োগ দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল। সম্প্রতি রাজ্য সরকারের নির্দেশে সেই নিয়োগ প্রক্রিয়া চালু হয়। মালদার বার্লো গার্লস স্কুলে শুরু হয় কাউন্সেলিং। ইতিমধ্যেই প্যানেলভুক্ত প্রায় ছ’শো জনের নিয়োগ হয়ে গেলেও হঠাৎ করে কোনও কারণ ছাড়াই কাউন্সেলিং বন্ধ করে দেওয়া হয়। এর ফলে প্যানেলে থাকা প্রায় দু’শো জন প্রার্থী কাউন্সেলিং-এর ডাক পাননি। ছ’শো জন নিয়োগের পরে প্যানেলের বাকি দু’শো জনকে কেন নিয়োগ করা হচ্ছে না, সেই দাবিতেই ধর্নায় বসেন তারা। আন্দোলনকারীদের একজন ফাজলে করিম আখতার জানান, একই প্যানেলের প্রায় ছ’শো জনকে নিয়োগ করা হল অথচ বাকি প্রায় দু’শো জনকে নিয়োগ করা হচ্ছে না। বিষয়টি নিয়ে ডিআই কে প্রশ্ন করা হলে তিনি এড়িয়ে যাচ্ছেন। আমাদের নিয়োগ করা না হলে আমরা বৃহত্তর আন্দোলনে নামব।  এদিকে, বৃহস্পতিবার গভীর রাত পর্যন্ত আন্দোলনের পর শুক্রবার দুপুর থেকে ফের আন্দোলন শুরু করলো প্রাথমিক শিক্ষক পদের চাকরিপ্রার্থীরা। তাদের বক্তব্য নিয়োগ পদ্ধতি নিয়ে তারা অন্ধকারে। অভিযোগ, গতকাল রাতে আন্দোলনকারিদের একটি ওয়েবসাইটের আইডি দিয়ে বলা সেখানে রোল নম্বর এবং জন্ম তারিখ দিলেই জানা যাবে কাউন্সেলিং কোথায় হবে। কিন্তু সেই সাইট খোলে না। আবার দেখা যাচ্ছে যাদের কাউন্সেলিং হয়েছে তাদের নামের তালিকা ঝোলান হলেও প্রথম দিকের তিনটি তালিকা নেই, চতুর্থ নম্বর পাতা থেকে ঝোলান হয়েছে। পুরো বিষয়টি নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে বলে দাবি বিক্ষোভকারীদের। যদিও এনিয়ে মন্তব্য করতে চাননি জেলা শিক্ষা আধিকারিক মানবেন্দ্র ঘোষ।